Header Ads

এক্সক্লুসিভ: সোমবার মিনার্ভা-আইজল ম্যাচে গড়াপেটার গন্ধ! বিস্তারিত জেনে নিন...


ইনসাইড এক্সক্লুসিভ: সোমবারের মিনার্ভা-আইজল ম্যাচের দিকে তাকিয়ে থাকবে গোটা ভারত। বিশেষ করে তাকিয়ে থাকবে ইস্টবেঙ্গল আর নেরোকা এফসি। তাকিয়ে অগণিত লাল-হলুদ সমর্থক। প্রার্থনা করবে যেন আইজল হারিয়ে দেয় মিনার্ভাকে। নিদেনপক্ষে ড্র।

কিন্তু এমন একটা ম্যাচের আগে ইস্টবেঙ্গল সমর্থকরা পাচ্ছে গড়াপেটার গন্ধ। যার কারণও যথার্থ। গড়াপেটার সম্ভাবনা উস্কে দিলেন আইজলের দুই নির্ভরযোগ্য বিদেশি। ধিকিধিকি আগুন জ্বলছে আইজলের অন্দরেই।

ইনসাইড নিউজ বাংলার সামনে ক্ষোভ উগরে দিলেন আইজলের দুই বিদেশি-- স্ট্রাইকার উগো কাবায়াশি এবং ডিফেন্ডার মাসহি সাইঘানি। ওঁদের টার্গেট কোচ সন্তোষ কাশ্যপ এবং টিম ম্যানেজমেন্টে যাঁরা আছেন।

কাবায়াশি জানিয়েছেন, 'প্রায় তিন সপ্তাহ ধরে আমাকে খেলানো হচ্ছে না। অথচ কিছু বলাও হচ্ছে না। আমি জানতেই পারছি না আমাকে না খেলানোর কারণ কী।'

অন্যদিকে সাইঘানিকে তো নিয়েই যাওয়া হয়নি পঞ্জাবে। যা নিয়ে ইনসাইড নিউজ বাংলার সামনে বিস্ফোরক এই আফগান ডিফেন্ডার। বলে চললেন, 'কোচ সন্তোষ কাশ্যপ আমাকে গোকুলাম ম্যাচের জন্য বিশ্রাম নিতে বলেছেন। এটা আমি কিছুতেই মেনে নিতে পারছি না। কারণ, আমি ফিট। এটা একটা গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচ। যে ম্যাচ লিগ টেবিলের অনেক কিছু পালটে দিতে পারে। আমি অসুস্থ ছিলাম। কিন্তু ইন্ডিয়ান অ্যারোজের বিরুদ্ধে নিজেকে ফিট লেগেছে। আমি ওঁকে সেটা বোঝানোরও চেষ্টা করি। কিন্তু উনি ভাবছেন অ্যারোজের মতো অ্যাকাডেমি দল আর মিনার্ভা হয়ত একইরকম। যাই হোক এটা ওনার সিদ্ধান্ত। এঁরা ফুটবলটা বোঝেই না।'

এখানেই থেমে যাননি সাইঘানি। ক্লাব ছাড়ার কথাও জানিয়ে দিলেন, 'আমি আমার সিদ্ধান্ত নিয়ে নিয়েছি। এখন আমার একমাত্র লক্ষ্য এএফসি কাপ। তারপর আর কোথাও থেকে অফার না পেলে ফুটবল খেলা ছেড়ে দেব, কিন্তু আইজলে এই কোচ, বোর্ডের সঙ্গে আর নয়। আমি সবসময় আমার সেরাটা দিয়ে পারফর্ম করে গেছি। কিন্তু এমন সিদ্ধান্তের কারণ বুঝতে পারছি না। তবে এই বুলশিটদের নিয়ে আর ভাবতেও চাই না।'

এতেই বোঝা যাচ্ছে, আইজলের অন্দরে ঠিক কী আগুন জ্বলছে এখন। আর এখানেই লাল-হলুদ সমর্থকদের মনে উঁকি দিচ্ছে প্রশ্ন। তবে কি গড়াপেটা হবে এই ম্যাচে? আইজল কি ম্যাচ ছাড়তে চলেছে? মনে রাখতে হবে, শেষ বছর খালিদ-সহ একঝাঁক ফুটবলার কিন্তু গত বছর আইজল ছেড়েছিল। লাল-হলুদ সমর্থকদের মনে প্রশ্ন, ভিতরের সেই রাগ কি মেটাতে চলেছে আইজল?

No comments

Powered by Blogger.